৪০ দিনের এক শিশুর পেটে মিলল ভ্রুণ

৪০ দিনের এক শিশুর পেটে মিলল ভ্রুণ

৪০ দিনের এক শিশুর পেটে মিলল ভ্রুণ

৪০ দিনের এক শিশুর পেটে মিলল ভ্রুণ।বিহার: এক বিরল, অবিশ্বাস্য ঘটনার সাক্ষী থাকল বিহার। চিকিৎসাবিজ্ঞানে এহেন ঘটনার দৃষ্টান্ত খুঁজে পাওয়া যায়না বললেই চলে। বিহারের মতিহারি শহরে ৪০ দিনের এক শিশুর পেটে মিলল ভ্রুণ। বিরল এই ঘটনাকে ডাক্তারি পরিভাষায় বলে ‘ফিটাস ইন ফেটু’। বলা বাহুল্য হাসপাতালের চিকিৎসক থেকে প্রতিটি কর্মী এই ঘটনায় স্তম্ভিত।

 

৪০ দিনের এক শিশুর পেটে মিলল ভ্রুণ।For More News Update:

 

জানা যায়, সম্প্রতি ৪০ দিন বয়সি একটি শিশুকে চিকিৎসার জন্য মতিহারির রহমানিয়া মেডিকেল সেন্টারে আনা হয়েছিল। শিশুর পরিবার জানায়, বিগত কিছুদিন ধরেই অস্বস্তিবোধ করছে শিশুটি। চিকিৎসকরা দেখেন, শিশুটির পেলভিস ফুলে রয়েছে এবং সে ঠিক করে মূত্রত্যাগ করতে পারছে না। পেলভিস ফুলে ওঠার কারণ পরীক্ষা করতে একাধিক পরীক্ষা করা হয়, এবং তাতে যা ফল আসে, তাতে চিকিৎসকদের চোখ কপালে ওঠে। মেডিক্যাল রিপোর্টে দেখা যায়, শিশুর পেটে রয়েছে একটি ভ্রুণ।

 

৪০ দিনের এক শিশুর পেটে মিলল ভ্রুণ।Visit our YouTube Chanel:

 

‘ফিটাস ইন ফেটু’, এই বিরল পরিস্থিতিতে মায়ের গর্ভে থাকাকালীন-ই শিশুর পেটে ভ্রুণ তৈরি হয়। সেই ভ্রুণই ধীরে ধীরে বেড়ে ওঠে শিশুর পেটে।রহমানিয়া মেডিক্যাল সেন্টারের চিকিৎসকরা জানান, ‘ফিটাস ইন ফেটু’ খুবই বিরল ঘটনা। ১০ লাখ রোগীর মধ্যে ৫ জনের এমনটা ঘটার সম্ভাবনা থাকতে পারে। তবে দ্রুত চিকিৎসা না করলে পরিস্থিতি জটিল হতে পারে।”

কন্যাসন্তান জন্মালেই লাগাতে হবে ১১১টি গাছ! গ্লোবাল নিউজ।

 

 

 

Leave a Reply

Your email address will not be published.